Logo
নোটিশ :
দেশের সকল জেলা-উপজেলা-থানা,পৌরসভা,বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজ পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক । প্রচারেই প্রসার, সীমিত খরচে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দেন আমাদের পত্রিকায় । যোগাযোগ: 019 79 91 08 65 ।
সংবাদ শিরনাম :
মির্জাগঞ্জ উপজেলার ভূমি অফিস পরিদর্শনে ডিএলআরসি : এলডি ট্যাক্স সফটওয়ারের পাইলটিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদেক্ষপ গ্রহণের নির্দেশ ঠাকুরগাঁওয়ে ট্রাক, ট্র্যাংকলরী, কাভার্ড ভ্যান ও পিকআপ শ্রমিক ইউনিয়নের সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে নতুন জামাইয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  হিজলায় বিক্ষুব্ধ জনতার ধাওয়ায় পংকজ নাথ’র দৌড়! ঠাকুরগাঁওয়ে বিষ্ণুর প্রতিকৃতি সম্বলিত টেরাকোটার মূর্তি উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ে দৈনিক প্রতিদিনের উত্তরবঙ্গ পত্রিকার ঈদ পুনর্মিলনী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন মেহেন্দিগঞ্জে অটো ও নসিমনের মুখোমুখী সংঘর্ষ আহত ২ ভোলায় সাংসদ পংকজের অনুসারী ফেন্সিডিল সহ পুলিশের হাতে আটক সংবাদকর্মী থেকে ঠাকুরগাঁওয়ের প্রথম নারী মেয়র আ’লীগের বন্যা, ফল বর্জণ বিএনপির
“১৪টি শর্ত মেনে ৩ মাস ১৩ দিন পর আজ খোলা হচ্ছে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত”

“১৪টি শর্ত মেনে ৩ মাস ১৩ দিন পর আজ খোলা হচ্ছে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত”

মোঃ আল আমিন (পটু্য়াখালী) প্রতিনিধি:
করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ৩ মাস ১৩ দিন পর খুলছে সাগরকন্যা কুয়াকাটা। পহেলা জুলাই থেকে জেলা প্রশাসনের দেয়া ১৪টি শর্ত মেনে সাগরে যেতে পারবেন পর্যটকরা।
ইতিমধ্যে পর্যটকরা অগ্রিম বুকিংয়ের জন্য যোগাযোগ শুরু করেছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকদের রাখার কথা জানিয়েছে হোটেল মোটেল ওনার্স এসোসিয়েশন কর্তৃপক্ষ।
সূর্যোদয় আর সূর্যাস্তের বেলাভূমি সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটা। গত ১৭ মার্চ কুয়াকাটার পর্যটন শিল্পকে লিখিতভাবে বন্ধ করে জেলা প্রশাসক। এর ফলে কয়েকশ কোটি টাকা লোকসানের মুখে এখানকার ট্যুরিজমের সঙ্গে থাকা ৫ হাজার ছোট বড় ব্যবসায়ীরা। করোনা থেকে রক্ষায় জেলা প্রশাসনের দেয়া ১৪টি শর্ত মেনে আবাসিক হোটেল পরিচালনা করছে; কিনা তা মনিটরিং করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি ভ্রাম্যমান টিম দেখভালের দায়িত্বে থাকবে।
জেলা প্রশাসনের দেয়া ১৪টি শর্ত মেনে পহেলা জুলাই থেকে হোটেল খোলার অনুমতি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী। তিনি জানান, গত ১৫ জুন থেকে গণপরিবহনসহ সকল কিছু খোলা হয়েছে। অর্থনীতি কর্মকাণ্ড সচল রাখতে পহেলা জুলাই থেকে খোলা হচ্ছে কুয়াকাটা। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবকিছু পরিচালনা করার কথা জানালেন তিনি।
১৮ মার্চ থেকে প্রশাসন ১৮ কিলোমিটার দীর্ঘ কুয়াকাটাকে লকডাউন ঘোষণা করে। এরপর থেকেই বন্ধ রয়েছে ৪ শতাধিক হোটেল-মোটেলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। আর কর্মহীন হয়ে পড়েছেন এর সঙ্গে যুক্ত থাকা পাঁচহাজার শ্রমিক মালিক।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *