Logo
নোটিশ :
দেশের সকল জেলা-উপজেলা-থানা,পৌরসভা,বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজ পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক । প্রচারেই প্রসার, সীমিত খরচে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দেন আমাদের পত্রিকায় । যোগাযোগ: 019 79 91 08 65 ।
সংবাদ শিরনাম :
শেরপুর জেলা হাবিপ্রবিয়ানদের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ঈদ সামগ্রী ও ঔষধ বিতরণ

শেরপুর জেলা হাবিপ্রবিয়ানদের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ঈদ সামগ্রী ও ঔষধ বিতরণ

মোঃ তারিকুল ইসলাম, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি:
৩০ জুলাই রোজ বৃহঃপতিবার হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শেরপুর জেলার শিক্ষার্থীদের প্রচেষ্টায় শেরপুর জেলার মুন্সির চরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় অর্ধশত পরিবারের মাঝে ত্রান সরূপ ঈদ সামগ্রী ও জুরুরি ঔষধ বিতরণ করা হয়। এ ত্রান পেয়ে বন্যা দুর্গত সাধারণ মানুষের মুখে ফুটে ওঠে কৃতজ্ঞতার হাসি। ত্রান বিতরণ কার্যক্রমে অংশ নেওয়া সকল শিক্ষার্থীরা তাদের এই মানবিক সাহায্য সাধ্যমত অব্যাহত রাখার কথা জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শেরপুর জেলার হাবিপ্রবি শিক্ষার্থী আব্দুল হাকিম, শাহ্ পরান, মোঃ রুহুল আমিন, অমিত সরকার, আইবুর রহমান অারমান, পাইরোস, তৌফিক আহম্মেদ অনিক,তাসিন ইবনে সিদ্দিক শুভ প্রমুখ ।
এ বিষয়ে শিক্ষার্থী তাহসিন ইবনে সিদ্দিক শুভ বলেন, “এই করোনাকালীন এবং বন্যা দুর্যোগের জন্য বানবাসী(বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত)  হতদরিদ্র মানুষের কষ্ট অনেক বেশী, আমরা হাবিপ্রবির শেরপুরের শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে কিছুটা সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসছি। আমরা খুব কাছ থেকে বন্যার্ত মানুষের কষ্ট দেখেছি এবং অন্য সবাইকে সাহায্যর হাত বাড়ানোর জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।”
ত্রান কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী অন্য আরেক শিক্ষার্থী শাহ্ পরান বলেন,” বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে দাড়াতে পেরে আমরা আনন্দ বোধ করছি। আগামি দিনেও আমরা হাবিপ্রবিয়ানরা মানুষের কল্যাণে কাজ করবো ইনশা-আল্লাহ্।”
এবং সর্বশেষে শিক্ষার্থী আব্দুল হাকিম বলেন “বন্যা দুর্গত মানুষের যে করুণ অবস্থা সেটা আমাদের এই স্বল্প সহযোগিতায় পুরন যোগ্য নয়। তার পরেও যতটুকু পুরন করা যায় আমরা আমাদের সাধ্যের মধ্যে চেষ্টা করেছি এবংকি আমি অশেষ ধন্যবাদ জানাই সেই সকল বন্ধু, বড় ভাই ও ছোট ভাইদের যাদের সহযোগিতা এবং অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আজকের ত্রান বিতরন সফল ভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে।”
Show quoted text
Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *